1. admanu3@gmail.com : admanu :
  2. arnasir81@gmail.com : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক
  3. nrad2007@gmail.com : এডমিন পেনেল : এডমিন পেনেল
  4. kawsarkayes@gmail.com : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক
  5. ad@gil.com : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক
  6. rafiqpress07@gmail.com : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম
  7. asmarimi85@gmail.com : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪৭ অপরাহ্ন

মাহবুবে আলমের কাজ আইন অঙ্গনের অনবদ্য ম্যাগনাকার্টা হতে পারে – শ ম রেজাউল করিম

প্রথম সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ১ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিবেদক।।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, “অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের কাছ থেকে শেখার জন্য গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা, সংবিধান সংশোধনী সংক্রান্ত মামলা, যুদ্ধাপরাধের মামলা, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে মামলাসহ উল্লেখযোগ্য অনেক মামলায় মাহবুবে আলমের উপস্থাপিত যুক্তি, মতামত ও ব্যাখ্যা আমাদের বিচার বিভাগ গ্রহণ করেছে। তার এসকল কাজ সহকর্মীরা যার যার জায়গা থেকে তুলে ধরলে তা আইন অঙ্গনের জন্য অনবদ্য ম্যাগনাকার্টা হতে পারে। আইনের জন্য একটা উপ্যাখ্যান হতে পারে। শিক্ষার একটি বাহন হতে পারে, পাথেয় হতে পারে।”

বুধবার (০৭ অক্টোবর) রাজধানীর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের স্মরণে ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম আয়োজিত শোকসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, “সমাজ ব্যবস্থায় নৈতিকতা ও মূল্যবোধের একটা ভয়াবহ অবক্ষয় ঘটছে। সে অবক্ষয়ের চিত্র সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ অবক্ষয়ের মধ্যে মাহবুবে আলমকে স্মরণ করা যেতে পারে। নৈতিকতা ও আদর্শের জায়গায় মাহবুবে আলমকে অনুকরণ ও অনুসরণ করার জায়গা রয়েছে। মাহবুবে আলমের সততার জায়গায় কোন ভন্ডামি বা হিপোক্রেসি ছিলনা। আইনজীবীরা যেনো তাকে ধারণ করার চেষ্টা করে, লালন করার চেষ্টা করে।”
শ ম রেজাউল করিম আরো বলেন, “বিচার বিভাগের দুর্নীতি নিয়ে মাহবুবে আলম পরিষ্কারভাবে কথা বলতেন। তিনি বলতেন বিচারকের সততার যোগ্যতা সব যোগ্যতায় চেয়ে উপচে পড়ার জায়গায় নিয়ে যেতে হবে। তার প্রচেষ্টা ও অনুপ্রেরণায় বার কাউন্সিলে মিথ্যা সার্টিফিকেটধারীদের আমরা ঠেকাতে সক্ষম হয়েছিলাম। বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিসেবে অভিভাবকের জায়গায় দাড়িয়ে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে আমাদের সাহায্য করেছিলেন। তিনি বার কাউন্সিলকে একটা ক্লিন জায়গায় নিয়ে আসার চেষ্টা করেছিলেন।

ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি মাশহুদুল হকের সভাপতিত্বে শোকসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক রুহুল কুদ্দুসসহ ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের প্রাক্তন নেতৃবৃন্দ শোক সভায় বক্তব্য প্রদান করেন। সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের অন্যান্য বিচারপতিবৃন্দ, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন নেতৃবৃন্দ ও নবীন-প্রবীণ আইনজীবীগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর