1. admanu3@gmail.com : admanu :
  2. arnasir81@gmail.com : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক
  3. nrad2007@gmail.com : এডমিন পেনেল : এডমিন পেনেল
  4. kawsarkayes@gmail.com : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক
  5. ad@gil.com : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক
  6. rafiqpress07@gmail.com : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম
  7. asmarimi85@gmail.com : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩১ পূর্বাহ্ন

চুয়েটে ” স্মার্ট সিটি নিয়ে ভাবনা” শীর্ষক ওয়েবইনার অনুষ্ঠিত

প্রথম সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
  • ২ বার পড়া হয়েছে

রাউজান প্রতিনিধি।।

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের আয়োজনে “স্মার্ট সিটি নিয়ে ভাবনা” (Webinar on Thinking on Smart City) শীর্ষক এক ওয়েবইনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ ০২ অক্টোবর (শুক্রবার) ৩টায় উক্ত ওয়েবইনারে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. রিয়াজ আক্তার মল্লিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. মইনুল ইসলাম। ওয়েবইনারটি পরিচালনা করেন নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এটিএম শাহজাহান। ওয়েবইনারে রিসোর্স পারসন হিসেবে স্মার্ট সিটি বিষয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন দক্ষিণ কোরিয়ার ইউনিভার্সিটি অফ ইউটাহ (University of UTAH) এর এশিয়া ক্যাম্পাসের সহকারী অধ্যাপক ড. রিয়াজুল আহসান।
ওয়েবইনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, “স্মার্ট সিটির ধারণা এখন উন্নত বিশ্বে বহুলভাবে আলোচিত হচ্ছে। আমাদের মত ঘনবসতিপূর্ণ দেশেও এই স্মার্ট সিটির ধারণা বাস্তবায়ন এখন জরুরি হয়ে পড়েছে। স্বাধীনতার পরে সাড়ে ৭ কোটির জনসংখ্যা এখন প্রায় ১৮ কোটিতে দাঁড়িয়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও সিলেটের মত বড় বড় শহরগুলোতে টেকসই উন্নয়ন এবং আধুনিক নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে স্মার্ট সিটির ধারণা নিয়ে ভাবতে হবে৷ সেজন্য আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (AI) এবং ইন্টারনেট অফ থিংস (IOT) প্রযুক্তিসহ অন্যান্য ইনোভেশন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। এক্ষেত্রে আমাদের প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এগিয়ে আসতে হবে।” উক্ত ওয়েবইনারে নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ, স্থাপত্য বিভাগসহ অন্যান্য বিভাগের শিক্ষকমণ্ডলীসহ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর