1. admanu3@gmail.com : admanu :
  2. arnasir81@gmail.com : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক : আব্দুর রহমান নাসির - বিশেষ প্রতিবেদক
  3. nrad2007@gmail.com : এডমিন পেনেল : এডমিন পেনেল
  4. kawsarkayes@gmail.com : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক : মোঃ আবু কাউসার - বিশেষ প্রতিবেদক
  5. ad@gil.com : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক : মোহাম্মদ আবু দারদা সহ-সম্পাদক
  6. rafiqpress07@gmail.com : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম : সম্পাদক ও প্রকাশক - এম.রফিকুল ইসলাম
  7. asmarimi85@gmail.com : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক : আসমা আক্তার রিমি সহ-সম্পাদক
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় অপার সম্ভাবনাময় খাত – মন্ত্রী বৃক্ষের আচ্ছাদন ২৫ শতাংশে উন্নীতির লক্ষ্যে সরকার – পরিবেশ মন্ত্রী ঝিনাইদহে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের বিক্ষোভ মিছিল সোনাপুর হাই স্কুলে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত জাতি বিনির্মাণে মানুষের মনন তৈরিতে গণমাধ্যম অনন্য -তথ্যমন্ত্রী দেশব্যাপী কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপিত হচ্ছে শনিবার সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে মানবকন্ঠ’র ঔদ্বত্যপূর্ণ আচরণে ডিইউজের নিন্দা অসহায় শিশুর পাশে সোনাগাজী পৌর মেয়র এড.খোকন যশোরে ব্যবসায়ী মোস্তফা হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন, আটক-২ রংপুরে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত এএসআই রাহেনুল গ্রেফতার

নীলফামারীর জলঢাকায় টিআর কাবিখা প্রকল্পের টাকা লুটপাট

প্রথম সংবাদ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪ বার পড়া হয়েছে

স্বপ্নাা আক্তার।নীলফামারী জেলাপ্রতিনিধি।।

শহরে রুপান্তরিত করতে বর্তমান সরকারের প্রাণপণচেষ্টাকে ধংশের মুখে নিয়ে যাচ্ছে তৃণমুল পর্যায়ের সরকার দলীয় নেতাকর্মীসহ সরকারের কিছুকর্মকর্তারা। এসব চিত্র দেখা যায় নীলফামারী জেলার তৃণমুল পর্যায়। শুরুতেই জেলার জলঢাকাউপজেলার গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য এমপির দেয়া বিশেষ বরাদ্দ কাবীখা ও টিআর প্রকল্পেরনামে মাত্র কাজ দেখিয়ে অর্থ আতœসাতেরঅভিযোগ উঠেছে প্রকল্প সভাপতিদের বিরুদ্ধে। এই উপজেলায় ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের বিশেষ বরাদ্দকাবীখা ও টি-আর প্রকল্পে প্রায় সোয়া দুই কোটি টাকা লুটপাট হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেস্থানীয় সুশিল সমাজ। অথচ এই লুটপাটের বিষয়ে খবরাখবর জানলেও কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে নাসংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। ফলে বরাদ্দের টাকা নিয়ে করছে নয়ছয় এবং চলছে ছলচাতুরী। এতে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন।২০১৯-২০২০ অর্থবছরে স্থানীয় সংসদ সদস্য কতৃক বিশেষ বরাদ্দ থেকে উপজেলারগ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নে কাবীখা ও টি-আরের মোট ১৪০টি প্রকল্পের অধীনে ০২ কোটি ১২লাখ ৩১ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের কাবীখার দেয়াবরাদ্দকৃত ৩৫টি প্রকল্পের ৩২১ মেঃটন গম। যার আনুমানিক মুল্য প্রায় ০১ কোটি ১৫ লক্ষ ৫৬হাজার টাকা। একই অর্থ বছরের দুই দফায় ২১৫টি টিআর প্রকল্পের প্রতিটি প্রকল্পে ৪৫ হাজারটাকা করে বরাদ্দ দিয়েছে মোট ৯৬ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা। কাবীখা ও টি-আর প্রকল্প গুলো বেশিরভাগেই কাঁচা রাস্তা সংস্কারের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রকল্পগুলোর পার্শবর্তী লোকজন বলতেপারে না রাস্তা সংস্কারের কথা।উপজেলায় একটি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নে এমপির বিশেষ বরাদ্দকৃত কাবীখা-টিআরপ্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতি ও লুটপাটের আখরায় পরিনত করেছে দলীয় নেতাকর্মীরাসহউপজেলা পশোসনের কিছু কর্মকর্তা। এই উপজেলার কৈমারী, কাঁঠালী, খুটামারা, শৌলমারী,ডাউয়াবাড়ী ও গোলমুন্ডা ইউনিয়নের বেশি ভাগ প্রকল্পের নামে মাত্র কাজ দেখিয়ে পুরো বরাদ্দউত্তোলন করেছে। আবার কোন কোন জায়গায় কাজ না করেই পুরো টাকা পকেটে ভরেছে।টিআর ও কাবিখা প্রকল্পের কাজে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্রচোখে দেখলেও জুন ক্লোজিংয়ের মধ্যেই পুরো টাকা উত্তোলনের সহযোগিতা করেছে উপজেলাপ্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা। জানতে চাইলে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ময়নুল হক, নিজেকে দ্বায়মুক্তকরে কথা বলতে বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব হাসান।মাহবুব হাসান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, জলঢাকা,নীলফামরী।বিশেষ বরাদ্দের উপর কোন হস্থক্ষেপ নেই বলে জানান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর