পঞ্চগড়ে কৃষকের সরিষার ক্ষেত নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা

পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাষা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের কৃষক জাহিদুল ইসলামের আড়াই বিঘা জমির সরিষার ক্ষেত নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা । এতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কৃষক । শুক্রবার (২০ জানুয়ারি ) দেবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটেছে৷ স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কৃষক জাহিদুল ইসলামের এই জমি বাপের ৩৫ সম্পদ বর্তমানে এই জমির খতিয়ানের মালিক তারা । এবারও চলতি মৌসুমে তিনি তার ৮২ শতক জমিতে সরিষা চাষ করেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে জমির সমস্ত সরিষার গাছ জঙ্গলমারা কীটনাশক দিয়ে নষ্ট করেন দুর্বৃত্তরা। সরেজমিনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে। স্থানীয়রা বলেন, জাহিদুল ইসলাম একজন সৎ গরীব কৃষক সে দিনরাত পরিশ্রম করে (৮২ শতাংশ) জমিতে চাষআবাদ করেন । তার জমিতে লাগানো সরিষার গাছ যারা নষ্ট করেছে তারা অমানবিক কাজ করেছে। আমরা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক বিচার দাবি করতেছি। এ বিষয়ে কৃষক জাহিদুল ইসলাম সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি শনিবার সকালে জমি দেখার জন্য জমিতে যাই। গিয়ে দেখি আমার জমিতে সরিষার গাছ জঙ্গল মারা ওষুধ দিয়ে নষ্ট করেছে আসিমুদ্দিন এবং জহিরুল । এদের সাথে আমাদের দীর্ঘদিনের শত্রুতা । এরেই জের ধরে গেল বছর আমার জমিনে লাগানো বাদাম খেত রাতের বেলায় তারা বাদাম গুলো চুরি করে নিয়ে যায় । খুব কষ্ট করে চাষআবাদ করি। এই ক্ষতিতে আমি মানসিকভাবে ভেঙ্গে পরেছি, এই ফসল কর্তনে প্রায় ৫০ / ৬০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে। যদি উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাকে একটু আর্থিক সহযোগিতা করতেন তাহলে হয়তো আমি উপকৃত হবো। এ বিষয়ে হাড়িভাষা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরে আলম মুঠোফোনে বলেন , আসলে এইধরনের কাজ খুব জঘন্য ঘৃণিত কাজ। যদিও রাতের আঁধারে করেছেন কে করেছে সেটা কেউ বলতে পারে না। আমি একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই। এবং পরবর্তীতে সততা পেলে আইন আনুক ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ