বাগেরহাটে আ.লীগ নেতার বাড়ীতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

বাগেরহাটের কচুয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক, বিশিষ্ট ঠিকাদার ও ইউপি সদস্য গোলাম শোকরানা রব্বানী আজাদ হোসেন বালীর বাড়ী ও তার ছোট ভাই আলম বালীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।
৯ জানুয়ারী দিবাগত রাত ২ টার দিকে উপজেলার হাজরাখালী গ্রামে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।
এ সময় ডাকাতরা আনুমানিক নগদ ১৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা,৩৪ ভরি স্বর্ণালংকার,৬ টি মোবাইল,২টা বিদেশী টর্চ লাইট সহ অন্যান্য মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

ইউপি সদস্যের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,আনুমানিক রাত ২টার দিকে বাড়ির বিল্ডিং এর পিছনের গ্রিল কেটে ৮ থেকে ১০ জন ডাকাত প্রথমে তার ছোট ভাই আলম বালীর ঘরে প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্র ও রিভলবার ঠেকিয়ে মুখ বেধেঁ বাড়ির সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার সহ সব জিনিস পত্র হাতিয়ে নেয়,পরে আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম শোকরানা রব্বানী আজাদ হোসেন বালীর বিল্ডিং এর পিছনের গ্রিল কেটে ঘরে প্রবেশ করে তারপরে তার ছোট ভাই  কে  ডাকাতরা রিভলবার ঠেকিয়ে এনে অসুস্থার ভাব ধরতে বলে তার মাকে রুমের দরজা খুলতে বলে পরে তার মা নাজমেয়ারা বেগম (৮০) রুমের দরজা খুলে দিলে ডাকাতরা ভিতরে ঢুকে অস্ত্র ঠেকিয়ে  সব কিছু লুট করে নেয়।
ঘটনা ঘটার পর পরই আওয়ামীলীগ নেতার ছেলে মোঃ শাওন হোসেন বালী ৯৯৯ নাম্বারে কল দিলে ঘটনা স্থলে পুলিশ এসে  তদন্ত শুরু করেছে। এ বিষয়ে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান ভুক্তভোগী ঠিকাদার আজাদ বালী অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন আসামী উল্যেখ করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে,এবং কাউকে আটক করা বা লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার হয়নি। তবে ডাকাত আটক ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত আছে।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ