হোপ ফাউন্ডেশন এর পার্বত্য চট্টগ্রামের চা শ্রমিকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

কনকনে শীতের আবাস দেশের বিভিন্ন স্থানে বড় ও মাঝারি আকারের শৈত্যপ্রবাহ কাঁপছে দেশ , পাশাপাশি ঘন কুয়াশায় অসহায় দারিদ্র মানুষের কষ্টের সীমা থাকে না। শীতের তীব্রতা বেড়েই চলেছে সেই সাথে শীতের আমেজে মেতে উঠেছে নগরবাসী। কিন্তু, আমেজ নেই রাস্তার পাশের কোনরকমে টিকে থাকা ছোট্ট কুড়েঘরে, আমেজ নেই পার্বত্য চট্টগ্রামের খেটে খাওয়া মানুষের। শুষ্ক মুখে চেয়ে থাকে পথে জীবন যাপন করা এবং দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলের অসহায় মুখগুলো একটু উষ্ণতার দিকে। উষ্ণতার পরশে নিজের পাশে জ্বালিয়ে রাখে আগুন। আর আমরা শুনি বিভিন্ন অনাকাঙ্ক্ষিত দূর্ঘটনা।

আর শীতে জবুথবু অবস্থায় থাকা শীতার্ত
মানুষদের উষ্ণতার হাসি পৌঁছে দিতে সোচ্চার সামাজিক কাজে কৃতিত্বপূর্ণ জাতীয় স্বীকৃতি শেখ হাসিনা ইয়্যূথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড-২০ প্রাপ্ত হোপ ফাউন্ডেশন। প্রতিবছরের ন্যায় ৭ম বারের মতো গত ৬ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখে অনলাইন প্লাটফর্ম কাজেরবাড়ির সৌজন্যে, হোপ ফাউন্ডেশনের উষ্ণতার হাসি “হেরে যাক শীত, জিতুক মানবতা” এই শ্লোগানে Save winter affected people- Season 06, অনুষ্ঠিত হয় পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার কাপ্তাই উপজেলার চা বাগানে কর্মরত প্রায় ৫০০ চা শ্রমিকদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া হয় উষ্ণতা। হোপ ফাউন্ডেশন এর শীত বস্ত্র বিতরণে ব্লু আর্মিদের মধ্যে উপস্তিত ছিলেন, উক্ত সংগঠনের এক্সিকিউটিভ বোর্ড মেম্বার-নাজমুল ইসলাম, সভাপতি-আশিক আমান ইতাজ, সম্পাদক- আসিবুর রহমান, ট্রাম্প আমান, রেখা দত্ত, সান্তানু বড়ুয়া, আল মাহমুদ, মেহেদি, হ্যাপি, ফারাজানা, মাহমুদ সহ সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবিন্দ।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ