টেন্ডার জমা দিতে বাঁধা-ব্যবসায়ীকে মারধর

মেসার্স মা এন্টারপ্রাইজের রাসেল আহমেদ মন্ডল (৪২) নামে এক ব্যবসায়ী সৌদি বাংলা ফিসফিড লিমিটেডে টেন্ডার জমা দিতে বাঁধা, মারধর করে ও প্রকাশ্যে হুমকির অভিযোগ উঠেছে কাজল ও তার ছেলের বিরুদ্ধে।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে ঢাকা খিলক্ষেত সৌদি বাংলা ফিসফিড লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। ওই দিনই ঢাকা খিলক্ষেত থানায় একটি সাধারণ ভায়েরি (নম্বর ১৯২) করেন ব্যবসায়ী রাসেল আহমেদ মন্ডল।

অভিযুক্তরা হলেন-ময়মনসিংহের ভালুকা পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মরহুম আব্দুল কুদ্দুস মন্ডলের ছেলে মো. কাজল মিয়া (৪৫) ও তার ছেলে নিশাত (২৭)।

থানায় সাধারণ ভায়েরি বিবরণে জানা যায়, ময়মনসিংহের ভালুকা পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেসার্স মা এন্টারপ্রাইজ ব্যবসায়ী রাসেল আহমেদ মন্ডল টেন্ডার জমা দিতে যান ঢাকা খিলক্ষেত সৌদি বাংলা প্রধান কার্যালয়ে। পরে সেখানে টেন্ডার জমা দেওয়ার সময় বাঁধা দেয়। একপর্যায়ে ওই ব্যবসায়ীকে মারধর করে টেন্ডারের কাগজ পত্র ছিনিয়ে নেওয়া চেষ্টা করে ও প্রকাশ্যে হুমকি দেন মো. কাজল মিয়া ও তার ছেলে নিশাত।

ভূক্তভোগী মেসার্স মা এন্টারপ্রাইজের ব্যবসায়ী রাসেল আহমেদ মন্ডল জানান, ঢাকা খিলক্ষেত সৌদি বাংলা ফিসফিড লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়ে টেন্ডার জমা দিতে গেলে বাঁধা দেওয়া হয়। আমাকে মারধর করে টেন্ডারের কাগজ পত্র ছিনিয়ে নিতে চায় ও প্রকাশ্যে হুমকি দেন মো. কাজল মিয়া ও তার ছেলে নিশাত।

টেন্ডার জমা দিতে বাঁধা, মারধর ও প্রকাশ্যে হুমকির বিষয়ে জানতে চাইলে মো. কাজল মিয়া। তিনি অস্বীকার করে মুঠোফোনে বলেন, আমার ছেলের সঙ্গে রাসেলের কথা কাটাকাটি হয়।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ