বাঙালি জাতির রক্তের আখরে অর্জিত বাংলাদেশ – শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

যশোর- ১, (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন বলেন বাঙালি জাতির তাজা রক্তের আখরে অর্জিত বাংলাদেশ আর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক কাপড়ে আঁকা স্বাধীন লাল সবুজের পতাকা। এই পতাকার সাথে আমাদের চাষী, মজুর, তাতী, জেলে, চাকুরিজীবি, আইনজীবিসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের হৃদয়ের বন্ধন গাঁথা।

সেই পতাকা ধরে দূর্বার গতিতে উন্নয়নের শিখায় ধাবিত হয়েছেন জাতির জনকের কণ্যা, বারবার নির্বাচিত বাঙালির প্রাণের স্পন্দন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমরা সেই উন্নœয়নকে আরো শক্তভাবে আঁকড়ে ধরে উন্নয়নের চুড়ান্ত শিখায় অবস্থান করতে চায়। এজন্য মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী হায়েনার দল যাতে কোনভাবে আমাদের উন্নয়নকে বাঁধাগ্রস্থ্য করতে না পারে, সেজন্য আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের সরকার আওয়ামীলীগকে আবারো রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় নিয়ে আসতে হবে।

বুধবার বিকেলে শার্শা থানা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত মহান বিজয় দিবস-২০২২ উদযাপন মঞ্চে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদাণকালে কথাগুলি বলেন তিনি।
শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) আকিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদাণ করেন যশোর জেলা পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়াদ্দার।

এসময় তিনি তার বক্তব্যে বাংলা, বাঙালি, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন সুত্রে গাঁথা। একটিকে ছাড়া আরেকটিকে বিচ্ছিন্ন করার কোন সুযোগ নেই, অবিচ্ছেদ্য। বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস, বাংলাদেশের ইতিহাস। বঙ্গবন্ধু ধাপে ধাপে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে নেতৃ স্বাধীন স্বার্বভৌম বাংলাদেশ তার নেতৃত্বে আমাদের গর্বের বীর মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের কাছে দিয়েছিলেন। আমরা পেয়েছিলাম একটি স্বাধীন স্বার্বভৌম বাংলাদেশ। যদি ইতিহাসের দিকে ফিরে তাকায় “বঙ্গবন্ধু বিহীন বাংলাদেশ, ঠিকানা বিহীন বাংলাদেশ”। আজকের বাস্তবতা অনেক পরিবর্তণ হয়েছে। ভিশন-২০২১. অনেক আগেই পূরণ হয়েছে। আমরা প্রধান মন্ত্রীর নেতৃত্বে এমডিজি অর্জণ করেছি। এসডিজি অর্জণ করেছি। মহাকাশ থেকে সমূদ্র, বাংলাদেশের ভৌগলিক সীমানা অনেক বেড়েছে, আমরা সমূদ্র বিজয় করেছি, মহাকাশ বিজয় করেছি, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। স্বপ্নের মেট্রো রেল, পদ্মা সেতু। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর কণ্যার নেতৃত্বে সঠিক পথে এগিয়ে চলেছে। প্রধানমন্ত্রী ডেল্টা প্লান দিয়েছেন, স্মার্ট বাংলাদেশের কথা বলেছেন। যা পৃথিবীর কোথাও চিন্তাও করেনা।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন স্বার্বভৌম বাংলাদেশ পেয়েছি। বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন একটি অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ একটি উন্নত সমৃদ্ধ অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গঠনের জন্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই প্রধানমন্ত্রীর নিত্যসারথী হিসেবে আমরা প্রত্যেকে প্রতেকের অবস্থান থেকে কাজ করলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হবে। আমরা বিশে^র মানচিত্রে মর্যাদাশীল জাতি হিসেবে মাথা উঁচু করে দাড়াব, ভবিষ্যত প্রজন্ম আমাদেরকে প্রশংসা করবে।

এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য প্রদাণ করেন শার্শা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, নির্বাহি কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র পাল, নাভারন সার্কেলের সিনিয়র এএসপি নিশাত আল নাহিয়ান, পুলিশ ইন্সপেক্টর মামুন খান, শার্শা থানা পুলিশিং কমিটির সভাপতি ও নাভারন কলেজের অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহ আলম হাওলাদার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী, সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বর ও সূধী বৃন্দরা।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ