তালতলীতে প্রবাসীর স্ত্রীর ওপর সন্ত্রাসী হামলা

বরগুনার তালতলী উপজেলার ৬ নং নিশান বাড়িয়া ইউনিয়নে সোবাহান পাড়া এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী শানু শেখ (৫৫) ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী প্রবাসীর স্ত্রী সুমি আক্তার (৩০) নামের এক মহিলার উপরে অমানবিক সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

বুধবার (২১ ডিসেম্বর)সকাল ১০ টায় বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নে ভুক্তভোগী সুমি আক্তার ন্যায় বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেন।

এঘটনায় তালতলী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভুগী সুমি আক্তার তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি তালতলী উপজেলার ৬ নং নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের সোবাহানপাড়া এলাকার জালাল উদ্দিন শেখের ছেলে আঃ রহিম ওরফে সানু শেখ এর কাছ থেকে অনেক দিন আগে ২৩ শতাংশ জমি ক্রয় করি। অনেক বছর ভোগ দখল করার পরে এবছর জমিতে ধান কাটতে গেলে আমাদেরকে বাধা দেন। পরে আমরা প্রতিবাদ করলে সানু শেখ ক্ষমতাবলে তার দলবল নিয়ে গত ১৬ ডিসেম্বর বিকেল ৪ঃ৪৫ সময় আমাদের উপরে হামলা চালায়। পরে আমরা বাধা দিলে আমাদেরকে চল,সাফল ও বগি দাও দিয়ে ধাওয়া করে। এসময়ে আমাকে বেধরক মারধর করে চল দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে তারা চলে যায়। পরে আমি অঞ্জান হয়ে পরলে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে তালতলী উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।
এসময়ে আমার গলায় থাকা দেড় ভরি ওজনের একটি স্বর্নের চেইন যার মূল্য (এক লাখ ৩০ হাজার টাকা) তারা নিয়ে যায়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আমাকে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ডাক্তার রেফার করেন। বর্তমানে আমি চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছি।

তিনি আরও বলেন,আমার স্বামী প্রবাসে (কুয়েত) থাকে। আমাকে অসহায় পেয়ে সানু শেখ তার দলবল আমার জমিতে জোর করে জবর দখল করতে চায়। এবিষয়ে তালতলী থানায় একটি মামলা দিলে তারা টাকা খেয়ে আসামি ধরতে গড়িমসি করে। আসামিরা থানার সামনে গোড়াফেরা করে কিন্তু পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে না।
আমি কোন উপায় না পেয়ে আপনাদের স্বরনাপন্য হয়েছি। আপনাদের মাধ্যমে আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

অভিযুক্তকারী আঃ রহিম ওরফে সানু শেখ তার কাছে এবিষয়ে জানতে চাইলে কোন যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এবিষয়ে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, এব্যাপারে থানায় একটি মামলা নেওয়া হয়েছে এবং আসামিদের ধরার জন্য আমাদের অভিযান অভ্যাহত রয়েছে।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ