বিজয় দিবসে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখ’র সমাধিস্থলে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ

বিজয় দিবসে মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গনের লড়াকু সৈনিক বাংলাদেশের সূর্য সন্তান শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখ’র প্রতি হাজারো মামুষ বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় স্মরণ করেছেন। বিজয় দিবসের প্রথম পহরে রাত ১২ টা ১ মিনিটে ৩১ বার তপোধ্বর্ণী মাধ্যমে কর্মসূচি শুরু হয়।

যশোরের শার্শা উপজেলার ডিহি ইউনিয়নের সিমান্তবর্তী কাশিপুর গ্রামে অবস্থিত বীরশ্রেষ্ঠের সমাধিস্থলে ফুলেল শ্রদ্ধা জানাতে বিজয় দিবসের ভোর সকাল হতেই শীত আর কুয়াশা উপেক্ষা করে জনসাধারণ শ্রদ্ধাঞ্জলি হাতে সমবেত হন। ভোরের সূর্য উঠার সাথে সাথে বিজয়ের ৫১ তম দিবসে সমাধিস্থল মানুষের মিলন মেলায় পরিনত হয়। শার্শার সংসদ সদস্য, উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিজিবি, আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগী সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন সংগঠন সহ সর্বপরি নানা শ্রেণী পেশার সব বয়সী মানুষ এ সূর্য সন্তানকে শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত হন।

সকাল ৮ টায় সমাধিতে প্রথমে দলীয় নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন। পরে সংসদ সদস্যসের সাথে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়ণ চন্দ্র পাল সহ উপজেলা বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, সরকারি বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর আসাদুল আলম খান সহ কলেজ পরিবার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, শার্শা ও নাভারণ হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন খান ও আব্দুল্লাহ আল মামুন,কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য নাজমুল হাসান সহ নেতৃবৃন্দ, উপজেলা পূজা উৎযাপন পরিষদ, ডিহি পাবলিক লাইব্রেরি, ডিহি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ,যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, শাড়াতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শাড়াতলা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, গৌকর্ণ শাড়াতলা দাখিল মাদ্রাসা, পাকশিয়া আইডিয়াল ডিগ্রী কলেজ, পাকশিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পাকশিয়া সম্মিলিত মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, আব্দুল আওয়াল স্মৃর্তি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়, বেলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন সংগঠন ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

শ্রদ্ধাঞ্জলি শেষে বীরশ্রেষ্ঠসহ সকল শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে সকাল ৯ টার দিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ যশোর ৪৯ বিজিবি সিও লেফট্যানেন্ট কর্ণেল শাহেদ মিনহাজ সিদ্দিকী বিজিবির একদল সুসজ্জিত অনারি দলের উপস্থিতিতে বীরশ্রেষ্ঠের সমাধিস্থলে গার্ড অফ অনার প্রদান ও শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। এ সময় সিও স্থানীয় ছোট শিশুদের অংশগ্রহণে মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ বিষয়ে তাৎক্ষণিক মৌখিক বিভিন্ন প্রশ্ন করলে সঠিক উত্তরদাতা সাত জনের হাতে নগদ অর্থ পুরষ্কার তুলে দেন।

পরে বিজিবির উদ্দোগ্যে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে কাশিপুর ব্যাংদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এলাকার ৩ শত শীতার্ত ও দরিদ্র জনসাধারণের মধ্যে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ এবং ফ্রি চিকিৎসা সেবা ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন সিও।এ সময় উপস্থিত ছিলেন এডি সাজ্জাদ, সুবেদার মেজর আব্দুল আওয়াল, কাশিপুর বিজিবি কোম্পানি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার গোলাম মওলা প্রমূখ।

এদিকে মহান বিজয় দিবস উৎযাপনে শার্শার প্রশাসন, রাজনৈতিক দল, সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পৃথক ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ