গেইলের পর টি-টোয়েন্টিতে শোয়েব মালিকের ১২ হাজার

আজকাল শোয়েব মালিক মাঠে নামলেই বুড়ো হাড়ের ভেল্কি কথাটা চলেই আসে। ক্যারিয়ারের শেষবেলায় এসেও শোয়েব যে তার ঝলক দেখিয়েই যাচ্ছেন। টি-টোয়েন্টির আঙ্গিনায় দীর্ঘ পথচলায় এবার একটি কীর্তিতে নাম লেখালেন, যেখানে তিনি বাদে আর আছেন মাত্র একজনই। টি-টোয়েন্টিতে বারো হাজার রানের মাইলফলক অর্জন করেছেন অভিজ্ঞ এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

চলমান লংকান প্রিমিয়ার লিগে শোয়েব মালিক খেলছেন জাফনা কিংসের হয়ে। জাফনার হয়েই কলম্বো স্টার্সের বিপক্ষে ম্যাচে ৩৫ রানের এক ইনিংস খেলেন শোয়েব, যে ইনিংসের মাধ্যমেই টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে রান সংখ্যা নিয়ে যান বারো হাজারের উপরে। শোয়েবের আগে বারো হাজার রানের এই মাইলস্টোনটা অর্জন করেছিলেন ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি ক্রিস গেইল।

২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও পাকিস্তান দলের সেমিফাইনাল যাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন শোয়েব মালিক। তবে ২০২২ সালের বিশ্বকাপেও পাকিস্তান দলে জায়গা হয়নি তাঁর। টেলিভিশনে ক্রিকেট বিশ্লেষকের ভূমিকায়ই তখন দেখা গিয়েছিল তাকে। সাধারণত যে ভূমিকায় খেলোয়াড় হিসেবে ক্রিকেট অধ্যায় সমাপ্তি করে দেওয়া ক্রিকেটারদেরই দেখা যায়। কিন্ত শোয়েবের যেন ক্রিকেটের সাথে সম্পর্ক শেষ হবারই নয়!

লংকান প্রিমিয়ার লিগে খেলতে আসলেন, টোয়েন্টি-টোয়েন্টির ফেরিওয়ালা গেইলের সাথে নিজেকেও মূল্যবান এক ক্লাবে অন্তর্ভুক্ত করলেন। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ৪৮৫তম ম্যাচে এসে প্রথম পাকিস্তানি ক্রিকেটার হিসেবে বারো হাজার রানের মাইলফলকের মালিক হলেন। মালিকের সাথে লংকান প্রিমিয়ার লিগে পাকিস্তানি আরও অনেকেই খেলছেন। আজম খান, আনওয়ার আলি, ইমাদ ওয়াসিম, ওয়াহাব রিয়াজ, এবং আরও অনেকে। শ্রীলংকান ক্রিকেটের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটি শুরু হয়েছে ৬ ডিসেম্বরে, যেটিতে লড়াই করছে পাঁচটি দল। কলম্বোতে ফাইনাল অনুষ্টিত হবে ডিসেম্বরের ২৩ তারিখে।

#প্রথম সংবাদ

- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ