রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২
রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২

জাতীয় বীরদের স্মরণ সভা পালন করেনা শরীয়তপুর জেলা আ. লীগ

আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামী বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাবেক ডেপুটি স্পিকার নড়িয়া ২ আসনের সাবেক ৬বারের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা কর্ণেল অবঃ শওকত আলীর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণসভা, মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বিকাল সাড়ে ৪ টায় শরীয়তপুর পৌরসভার অডিটোরিয়ামে নুসার আয়োজনে এ স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। নুসার চেয়ারম্যান শরীয়তপুর জজ কোর্টের পিপি এ্যাড. ফিরুজ আহম্মেদের সভাপত্বিতে বক্তব্য রাখেন, কর্ণেল শওকত আলীর সহধর্মিণী মাজেদা শওকত, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার আব্দুর রব মুন্সি, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য খালেদ শওকত আলী, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র এড.পারভেজ রহমান জন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও চিতলীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম হাওলাদার, শরীয়তপুর প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এ্যাড, আলমগীর হোসেন মুন্সী, এ্যাড, মতিউর রহমান, এ্যাড, তাইজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা জানে আলম মুন্সী, যুবলীগ নেতা ছিদ্দিক পাহাড়, জেলা পরিষদ সদস্য আলী আজগর চুন্নু, জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ বোরহান মুন্সি, সাবেক সদস্য শাখাওয়াত হোসেন হাওলাদার, এ্যাড সোহাগ ফকির, ব্যরিস্টার উদয় শওকত আলী, হৃদয় শওকত আলী,স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মুরাদ মাঝী প্রমুখ।

এসময় জেলার শতাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।৷ উপস্থিত নেতাকর্মীরা জেলা আওয়ামীলীগের নেতাদের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জেলায় দু’জন জাতীয় নেতা কর্ণেল শওকত আলী ও আব্দুর রাজ্জাকের মৃত্যুর পর তারা কোন খোঁজ খবর নেয়নি। তাদের উদ্যোগে এ দু’জন নেতার কোন স্মরণসভা পালন করেনা তারা। এটা আমাদের জন্য খুবই লজ্জাজনক। শরীয়তপুরের মানুষ হিসেবে এ বিষয়টি মেনে নিতে খুবই কষ্ট হয়।

সর্বশেষ সংবাদ