এটি বিজ্ঞাপন এর স্থান spot_img

সুন্দরবনে বাঘের পেটে জেলে, পাওয়া গেলো রক্তাক্ত পোষাক

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের গহীন অরণ্যের খালে মাছ ধরতে গিয়ে বাঘের আক্রমণে নিহত হয়েছে শিপার হাওলাদার (২২) নামে এক জেলে।বাঘটি জেলে শিপারের পুরো দেহই খেয়ে ফেলেছে।

রবিবার (১অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে তল্লাশি করে সুন্দরবনের ধানসাগর স্টেশনের তুলাতলা এলাকার গহীন অরণ্য থেকে নিঁখোজের পাঁচদিন পর ওই জেলের শুধু মাথা ও রক্তাক্ত পরনের প্যান্ট উদ্ধার করে স্বজনেরা। গত বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে কোন বৈধ অনুমতিপত্র (পাশ-পারমিট) ছাড়াই চোরাপথে সুন্দরবনে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ হন জেলে শিপার। বাঘের খাদ্য হওয়া নিহত জেলে শিপার হাওলাদার বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রাজাপুর গ্রামের জেলে ফারুক হাওলাদারের ছেলে। সুন্দরবন বিভাগ এতথ্য নিশ্চিত করেছে।

শরণখোলা উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য কামাল হোসেন তালুকদার জানান, গত বুধবার সকালে শিপার হাওলাদার বন বিভাগের কোন অনুমতি ছাড়া অবৈধ ভাবে একাই সুন্দরবনের খালে ঝাকি জাল দিয়ে মাছ ধরতে যান। দিনের মধ্যেই তার বাড়ীতে ফিরে আসার কথা। সারাদিনেও সে ফিরে না উৎকণ্ঠায় পড়েন পরিবারের লোকজন। প্রথমে তারা নিজেরা সুন্দরবনে তল্লাশি শুরু করেন। কোন সন্ধান না পেয়ে বন বিভাগের অনুমতি নিয়ে সর্বশেষ রবিবার ভোরে পরিবারের লোকজনসহ অর্ধশতাধিক গ্রামবাসী লাঠিসোটা নিয়ে সুন্দরবনে তল্লাশি শুরু করেন। সকাল ৮টার দিকে সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের তুলাতলা এলাকার গহীন অরণ্য থেকে নিঁখোজের পাঁচদিন পর ওই জেলের শুধু মাথা ও রক্তাক্ত পরনের প্যান্ট উদ্ধার করে। এসময়ে ঘটনাস্থল ও আশপাশে বাঘের পায়ের অসংখ্য ছাপ দেখতে পান উদ্ধারকারীরা। মাথাটি বাড়িতে নিয়ে আসার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বজনরা। মাথাটি বিকালে বাড়ীতেই দাফন করা হয়েছে। এঘটনা শোনার পর সুন্দরবন সন্নিহিত লোকালয়ের বনজীবীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
সুন্দরবনের চাঁপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা (এসও) মো. রবিউল ইসলাম জানান, ধানসাগর স্টেশনের তুলাতলা এলাকার গহীন অরণ্য থেকে নিঁখোজের পাঁচদিন পর রবিবার সকালে জেলে শিপার হাওলাদারের শুধু মাথা ও রক্তাক্ত পরনের প্যান্ট উদ্ধার করা হয়েছে। বাঘের আক্রমণে জেলে শিপারের মৃত্যু হয়েছে। জেলে শিপার কোন পাশ-পারমিট ছাড়াই অবৈধভাবে সুন্দরবনে মাছ ধরতে গিয়েছিল। এঘটনার পর সুন্দরবন সংলগ্ন লোকালয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। স্থানীয় লোকজন বা কোনো জেলে যাতে অবৈধভাবে সুন্দরবনে প্রবেশ না করে সেজন্য বন বিভাগ থেকে নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

- Advertisement -spot_img

Related Articles

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ সংবাদ

- Advertisement -spot_img