ভালুকায় র‍্যাবের হুমকি দিয়ে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ

Link Copied!

ময়মনসিংহের ভালুকায় র‍্যাবের হুমকি দিয়ে এক প্রতিবন্ধী পরিবারের জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে র‍্যাবের উপ-পরিদর্শক মোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে। তিনি র‍্যাব সদর দপ্তরে কর্মরত আছেন। এ ঘটনায় র‍্যাবের মহাপরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে এমপক জাহান ইতি নামের এক ভূক্তভোগী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কাঠালী মৌজার বিআরএস ১০৮ নং খতিয়ানের ৩৮৭নং দাগে ৪২ শতাংশ জমি মরহুম আ. রশিদের নামে রেকর্ডে লিপিবদ্ধ আছে। ওয়ারিশ সুত্রে মালিক হয়ে ২১৫২ নং জমা খারিজ খতিয়ান মূলে বর্তমান হাল সন পর্যন্ত খাজনাদী পরিশোধ করা রয়েছে। সম্প্রতি র‍্যাবের উপ-পরিদর্শক মোজাম্মেল হক গং নামীয় একটি সাইনবোর্ড ওই জমিতে টানাতে গেলে এমপক জাহান ইতির পরিবারের লোকজন বাধা দিলে সাইনবোর্ডটি ফেলে চলে যায়। ওইদিনই রাধের আঁধারে হুবুহু একটি সাইনবোর্ড টানায় মোজাম্মেল হক গং। এ ঘটনার পরের দিন ইতির পরিবার পাকা বাউন্ডারী ও টিনের বাউন্ডারি দেয়। বর্তমানে বসতবাড়ির কাজ করতে গেলে র‍্যাবের উপ-পরিদর্শক মোজাম্মেল হকের আত্তিয় স্বজন আনিছুজ্জামান খান, মিয়াদ খান, সুমন খান ও মিহিন র‍্যাবের কথা বলে বিভিন্ন প্রকার ভয় ভীতি ও হুকমি প্রদান করছে। তাছাড়া এমপক জাহান ইতির স্বামীকে র‍্যাবের মাধ্যমে ক্রস ফায়ার করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।

এমপক জাহান ইতি জানান, ‘আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। আমরা খুব অসহায়। আমি র‍্যাবের সম্মানিত মহাপরিচালক মহোদয় বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমি বিশ্বাস করি তিনি প্রতিবন্ধি পরিবারের পাশে দাঁড়াবেন এবং সরকারের অন্যতম স্বনামধন্য এ সংস্থার সুনার অক্ষুণ্ণ রাখবেন।’

র‍্যাবের এক উপ-পরিদর্শক মোজাম্মেল হক বলেন, ”শুনেছি আমার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ পড়েছে। আমি সরকারী চাকরী করি। এ বিষয়ে আমি যা বলার তা আমার উর্ধতন কর্তৃপক্ষকেই বলবো। এ বিষয়ে সাংবাদিকের কাছে কোন বক্তব্য দেওয়ার প্রয়োজন আমি মনে করছিনা।”