ভাস্কর্য একটি প্রাচীনতম শিল্প প্রক্রিয়া- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

Link Copied!

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, ভাস্কর্য একটি প্রাচীনতম শিল্প প্রক্রিয়া। চিত্রকর্মের মতো ভাস্কর্যও একটি বিশেষ ধরনের শিল্পসাধন যেখানে মানবজীবনের প্রয়োজনসিদ্ধি নেই। কিন্তু মানসলোকের অনুভূতি ও কল্পনার অনিবার্য প্রতিফলন রয়েছে। একটি চিত্রকর্মে উপকরণ বা উপাদান পরিদৃশ্যমানতার মধ্যে ততটা প্রাধান্য পায় না যতটা ভাস্কর্যে পায়। কেবল শিল্পবস্তু হিসেবে নয়, ব্যক্তিত্ব, ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও ঘটনাপ্রবাহের স্মারকরূপেও দেশে দেশে ভাস্কর্যের বহুমুখী তাৎপর্য রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ বিকালে রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও ইসাবেলা ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ‘জয় বাংলা’ শিরোনামে ভাস্কর রাসার পঞ্চম একক ভাস্কর্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বা সনদ শিল্পী-সাহিত্যিক-সংস্কৃতিকর্মীদের মানদণ্ড নয়, তাদের মানদণ্ড হলো সৃষ্টিকর্ম ও সৃজনশীলতা। আর এ সৃজনশীলতার উৎস মানুষ, নদী, প্রকৃতি, প্রেম এমনকি জাতির পিতার জীবনাদর্শ ও চেতনা। সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীতে সবচেয়ে কষ্ট হচ্ছে ক্ষুধার কষ্ট। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের মানুষের এ কষ্ট দূর করেছেন, নিরন্ন মানুষের মুখে আহার জুগিয়েছেন। বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ যেখানে একটি মানুষও না খেয়ে থাকে না। কে এম খালিদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ শুধু অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নয়, শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির প্রতিটি শাখায় এগিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সচিব মো. আছাদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে ফ্রান্সের প্যারিস থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা ইসাবেলা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট জাদুঘর এর কিউরেটর সাবেক সচিব নজরুল ইসলাম খান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন ভাস্কর রাসা।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ভাস্কর্য গ্যালারিতে ভাস্কর রাসার সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠিত এ প্রদর্শনী আগামী ২১ জুন, ২০২২ তারিখ পর্যন্ত চলবে।

পরে প্রতিমন্ত্রী বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে বাংলা একাডেমির সভাপতি সাহিত্যমনীষী সেলিনা হোসেনের ৭৫তম জন্মবার্ষিকী ও ৭৬তম জন্মদিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গীয় সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।