ঢাকাশনিবার , ৩০ এপ্রিল ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য
  9. জাতীয়
  10. তথ্য ও প্রযুক্তি
  11. প্রবাস বাংলা
  12. বিনোদন
  13. রাজনীতি
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

কাকা আপনার হাসিমাখা মুখটাই মনে থাকবে

নিজস্ব প্রতিনিধি।।
এপ্রিল ৩০, ২০২২ ২:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আবুল মাল আবদুল মুহিত মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। তাঁর ছোট ভাই পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. মোমেনের দপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

পরিবারের সদস্যরা জানান, আজ শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় গুলশান আজাদ মসজিদে প্রথম জানাজা, সকাল সাড়ে ১১টায় সংসদ প্লাজায় দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। দুপুর ২টায় তাঁর মরদেহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য শহীদ মিনারে নেওয়া হবে এবং পরে দাফনের জন্য মরদেহ সিলেটে নেওয়া হবে।

আবুল মাল আবদুল মুহিত লিভার ক্যানসারে ভুগছিলেন। করোনার মধ্যে দেড় বছর আগে এই রোগ সম্পর্কে জানতে পারেন তিনি। গত বছরে করোনায়ও আক্রান্ত হন আবুল মাল আবদুল মুহিত। ওই বছরের ২৯ জুলাই তাকে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। পরে তিনি করোনামুক্ত হয়ে বাসায় ফেরেন। এরপর থেকেই তিনি শারীরিকভাবে অনেকটা দুর্বল হয়ে পড়েন। দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন ধরনের শারীরিক ও বার্ধক্যজনিত জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি।

২০১১ এই এপ্রিল মাসের ২৯ তারিখে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রথম দেখা আমার সাথে, তিনি শিশুদের স্নেহ করতেন, ২০১১ জুলাইয়ে সনে শিশু বান্ধব বাজেট বিষয়ক সেমিনারে অংশগ্রহণ করি, কাওরানবাজারের প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে,সেখানে অনেক কথা বলার সময় আমি স্যার বলে ডাকছিলাম, তিনি বলেন আজ থেকে কাকা ডাকবে যেহেতু তুমি আমার চোখে সন্তানের মত, তাঁকে ‘স্যার’ বলেই ডাকা সঙ্গত,
তাই মুখে বার বার স্যার শব্দ বের হচ্ছিল কিন্ত তিনি বলেন কাকা বললো আমি খুব খুশি হব,
সেখানে আমায় সহ আমরা শিশু সাংবাদিক ছিলাম ২২ জন সকলকেই তিনি বই উপহার দেন, সংগ্রাম থেকে স্বাধীনতা, মু্ক্তিযুদ্ধের ইতিহাস,
এপ্রিলে বাংলাদেশ টেলিভিশন এর আয়োজনে আমাদের কথা বলতে আমরা শিশু সাংবাদিক বিভিন্ন জেলার থেকে ছুটে আসি, যাদুর সহর প্রানের শহর ঢাকা শহরে
আমার তার কাছে তখন প্রশ্ন ছিল সিগারেটের দাম খুব কম তাই শিশুরা তাই ধুমপানে অবস্ত হয়ে পরছে সিগারেটের প্রতি বেশি কর আরোপ করে এই সমস্যার সমাধান করা যায় না??
সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন তুমি ধুমপান বিরোধী দলের নেতা বলে মনে হচ্ছে, তিনি বলেন হ্যা সবচেয়ে বেশি কর আদায় করে থাকি সেটা দামি সিগারেটের উপর, কম দামি সিগারেটেরটা নমনিও তাই সবচেয়ে বেশি কর দামি সিগারেটের উপর বেশি ধারন করে থাকি ।

আল্লাহ তাকে জান্নাতুল ফেরদৌসের সর্বোত্তম স্থান দান করুন।

লেখকঃ

অনিক রায়হান সাবু।।