ঢাকাসোমবার , ১১ এপ্রিল ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য
  9. জাতীয়
  10. তথ্য ও প্রযুক্তি
  11. প্রবাস বাংলা
  12. বিনোদন
  13. রাজনীতি
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ক্যাম্পাসের ইফতারি

মোতালেব বিশ্বাস। ইবি প্রতিনিধি।।
এপ্রিল ১১, ২০২২ ৪:৩৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দিন যায় আবার নতুন দিন আসে। ওমনি করে ইসলামি বিশ্বিবদ্যালয়ের ক্যাম্পাসেও দিন আসে আবার সূর্য অস্ত গিয়ে রাত হয় তেমনি করে আবার নতুন দিন শুরু হয়।

তবে এবার ইবি ক্যাম্পাসের দিন গুলো যেন এখন ভিন্ন ভাবে কাটতে দেখা যায়।আর এটা শুরু হয়েছে রমজান মাসের শুরু হতে।শিক্ষার্থীরা ক্লাস শেষে আসর নামাজ পর জড়ো হতে দেখা যায় ক্যাম্পাসের জিয়া হল সংলগ্ন জিয়া মোড়ে।

কারণ এই জিয়া মোড়ে বসেছে বিভিন্ন ইফতারির ছোট ছোট অস্থায়ী দোকান।আর সেখানে পাওয়া যাচ্ছে সুলভ মূল্যে বিভিন্ন ইফতারি।সেখানে ইফতারি ক্রয় করতেই বিকেল থেকে শুরু হয় শিক্ষার্থীদের আনাগোনা।

এসব দোকানে যেসব ইফতারি পওয়া যায় তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো: খেজুর, কলা, আনারস,
পেয়ারা,তরমুজ,লেবু,বেল,ছোলা,মুড়ি,সমুচা,পিয়াজু,সিঙ্গারা,আলুর চোপ,বেগুনি,বান্দিয়া ও বিভিন্ন ধরনের সরাবতসহ ইত্যাদি আইটেম।

আর এখান থেকে ইফতারি ক্রয় করে তারা দলে দলে ইফতার নিয়ে গ্রুপ গ্রুপ করে বসে যায় ক্যাম্পাসের ক্রিকেট মাঠ ও হলের ছাদ গুলোতে।আর এই দৃশ্য দেখলে মন জুড়াবে যে কারো।বাইরে থেকে দেখে মনে হয় যেন সবাই পরিবারের সাথেই ইফতারিতে বসেছে।

গ্রুপ আকারে ইফতারিতে বসা এক।গমগমদল গ্রুপের সাথে কথা বলে যায় তারা জেলা কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে ইফতারি আয়োজন করেছে।এছাড়াও ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংগঠন, বিভাগের পক্ষ থেকে, হলের পক্ষ থেকে ও কাছের বন্ধু- বান্ধবী একসাথে হয়ে ইফতারি করতে দেখা যায়।

তেমনি এক দলের একজন সদস্য নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন,”দীর্ঘ দিন পর ক্যাম্পাসে একসাথে ইফতারি করতে পেরে নিজের মধ্যে এক অন্য রকগ।্মহঃম ভাল লাগা কাজ করছে যা কিনা পরিবারকেও হার মানায়।”

জানা যায়, দীর্ঘদিন করোনার কারনে বিশ্বিবদ্যালয় বন্ধ থাকায় এবছর রমজান মাসেও ক্যাম্পাস খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।কারন করোনার জন্য বন্ধে তৈরি হয়েছে দীর্ঘ সেশন জোট। মূলত এটা থেকে কিছুটা কাটিয়ে ওঠার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত।

রমজানে এবার ক্যাম্পাস খোলা থাকায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় ইফতারির দোকানিরা আনন্দ প্রকাশ করে তারা বলেন, এবার যা ক্যাম্পাসে ইফতারি বিক্রি হচ্ছে এর আগে কোন রমজানে এত ইফতারি বিক্রি করেছি বলে আমার মনে হয় না।সব মিলিয়ে এবার রমজান মাসে যে পরিবেশ তা আগে কখনো দেখিনি।