জবির গ্রেফতারকৃত শিক্ষার্থীদের অপরাধী বলাই একধরনের অপরাধ: আনু মুহাম্মদ

Link Copied!

সরকার বিরোধী শ্লোগান ও দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের অভিযোগে গত ২৪ মার্চ ভোররাতে পুরান ঢাকার একটি মেসে অভিযান চালিয়ে জবির ১২ শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তিনদিনের রিমান্ড শেষে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। এই অভিযোগ আমলে নিয়ে ১১ শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে যে কারণে এই শিক্ষার্থীদের গ্রেফতার ও বহিষ্কার করা হয়েছে সেটাকে অপরাধ বলাও এক ধরণের অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. আনু মুহাম্মদ।

বৃহস্পতিবার রাতে এ বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, সরকার বিরোধী বক্তব্য প্রচার তো কোনো অপরাধ হতে পারে না, বরং একে অপরাধ বলা, তার জন্য তাদের শাস্তি দেওয়াই তো অপরাধ।

অনু মুহাম্মদ বলেন, পত্রিকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের একটা বক্তব্য দেখলাম- ‘সার্বভৌমত্ব’ ক্ষতিগ্রস্ত করা, দেশের ‘অনিষ্ট’ করা, সরকার বিরোধী বক্তব্য প্রচার ইত্যাদি অভিযোগে তারা কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, তারা এখন আটক। প্রশাসনের বক্তব্য খুবই অস্পষ্ট। এই নিরস্ত্র শিক্ষার্থীদের এতো শক্তি যে তারা সার্বভৌমত্ব ক্ষতিগ্রস্ত করছে?

জানতে চেয়ে এই শিক্ষক আরও বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কি শিক্ষার্থীদের প্রতিপক্ষ হিসেবে দেখবে, না কাস্টমার হিসেবে দেখবে, না কি দেখবে নিজের সত্তার অংশ হিসেবে?