ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৩ জানুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য
  9. জাতীয়
  10. তথ্য ও প্রযুক্তি
  11. প্রবাস বাংলা
  12. বিনোদন
  13. রাজনীতি
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শ্রমিকের অন্ডকোষে আঘাত করে হাসপাতালে পাঠালো কর্তৃপক্ষ

সাভার প্রতিনিধি।।
জানুয়ারি ১৩, ২০২২ ২:২৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সাভারের একটি তৈরি পোশাক কারখানায় উৎপাদন কম হওয়ায় মারধর ও অন্ডকোষে সুতার কোন দিয়ে আঘাত করে শ্রমিককে আহত করেছে ফ্লোর ইনচার্জ। পরে তাকে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১০ টার দিকে সাভার থানা স্ট্যান্ড সংলগ্ন পাকিজা নীট কম্পোজিট লিমিটেড কারখানায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হাসপাতালে যাওয়ার আগেই ওই শ্রমিককে হাসপাতাল থেকে সরিয়ে নেয় কারখানা কতৃপক্ষ।

আহত শ্রমিকের নাম মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি কারখানার ৬ তলায় সুপারভাইজার পদে চাকরি করতেন। প্রডাকশন (উৎপাদন) কম হওয়ায় তাকে মারধর করা হয়েছে বলে জানা যায়।

শ্রমিকরা জানায়, সকালে ৬ তলায় সুপারভাইজার মোস্তাফিজুর কারখানায় আসলে তার উৎপাদন কম হওয়ার কারন জানতে চান ফ্লোর ইনচার্জ জুয়েল রানা। এসময় দুই জনের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে রাগান্বিত হয়ে ফ্লোর ইনচার্জ জুয়েল সুপারভাইজার মোস্তাফিজুর রহমানকে সুতার কোন দিয়ে তার অন্ডকোষে আঘাত করেন। সাথে সাথেই মোস্তাফিজ ফ্লোরে পরে যায়। পরে তাকে রোজ ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। তবে রোজ ক্লিনিকে যাওয়ার আগেই ওই শ্রমিককে সরিয়ে নেয় কতৃপক্ষ।

এব্যাপারে টেক্সটাইল গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সাভার-আশুলিয়া-ধামরাই আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি শাহ-আলম বলেন, শ্রমিককে মারধর করার নিয়ম কোন কারখানায় নেই। তবে কারখানায় মারধরের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি যে না হয় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের প্রতি আহবান জানাই।

এব্যাপারে কারখানার অ্যাডমিন ম্যানেজার মোস্তাকিম বলেন, কারখানায় অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ওই শ্রমিক অন্ডকোষে আঘাত পেয়েছে। তাকে আমরা হাসপাতালে পাঠিয়েছি। পাশাপাশি অভিযুক্ত ফ্লোর ইনচার্জকে আমারা চাকরিচ্যুত করেছি। আমার প্রতিষ্ঠানে গায়ে হাত তোলার কোন নিয়ম নাই। যেই গায়ে হাত তুলবে তার বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠান জিরো টলারেন্স