বাগাতিপাড়ায় মাছ শিকার দেখতে পুকুর পাড়ে ভীড়

Link Copied!

বাহারি রকমের ছিপদিয়ে টিকিট কেটে পুকুরে মাছ শিকারের আয়োজন করা হয়েছিল নাটোরের বাগাতিপাড়ায়।

শুক্রবার (১ অক্টোবর) সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের শালাইনগর এলাকার আবুল হাসেমের দরগার পুকুরে এই মাছ শিকারের আয়োজন করা হয়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ১২ টি সিটে ৬০ এর অধিক দেশের বিভিন্ন স্থানের মাছ শিকারি প্রতিটি সিট সাড়ে সাত হাজার টাকা হারে কিনে মাছ শিকার করতে এসেছিলেন।

এ ধরনের আয়োজন এই এলাকায় নতুন হওয়ায় অনেকে তা দেখতে সকাল থেকে ভিড় জমিয়েছিলেন পুকুর পাড়ে।
শুক্রবার ছুটির দিন বাড়িতে বসে না থেকে মাছ শিকারের কথা শুনে মনের প্রফুল্লতার জন্য তা দেখতে এসেছি। ছোট বড় সবধরনের মাছই ধরা পড়ছে, দেখতেও ভালো লাগছে বলে অনুভূতি প্রকাশ করেন মাছ শিকার দেখতে আসা উপজেলার তকিনগর আইডিয়াল হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক তরিকুল ইসলাম।

পার্শ্ববর্তী রাজশাহী জেলার ডাকরা থেকে আসা মাছ শিকারি আলম হোসেন বলেন, মাছ শিকার করতে ভালো লাগে। তাই যেখানে মাছ শিকারের খবর পায় সেখানেই যওয়ার চেষ্টা করি। এদিন দুপুর পর্যন্ত প্রায় ৩০ কেজি মাছ পেয়েছেন। এর মধ্যে একটা ৭ কেজি ওজনের কাতল মাছও পেয়েছেন তিনি। মাছ ভালো ধরায় ভালো লাগছে তার।

মাছ শিকারি বাগাতিপাড়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান বলেন, হুইল দিয়ে মাছ শিকার করতে তাঁর ভালো লাগে। সেজন্য তিনি এসেছেন। ছিপে মাছও ভালো উঠায় বেশ মজা লাগছে বলে জানান তিনি। বিভিন্ন এলাকার মৎস্য শিকারিদের সাথে যোগাযোগ করে এবারই প্রথম টিকিটের মাধ্যমে মাছ ধরার আয়োজন করা হয়েছে।

মাছ শিকারিদের ছিপে রুই, কাতল, মৃগেল, ব্লাড কার্প, জাপানী মাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ধরা পড়ছে। তার পুকুরে সাড়ে নয় কেজি পর্যন্ত মাছ আছে, ইতিমধ্যে এই দিনে একজন মাছ শিকারির ছিপে ৭ কেজি ওজনের একটি মাছ ধরাও পড়েছে। এছাড়া অনেকেই তিন-চার কেজি ওজনের মাছ পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন পুকুর মালিক আবুল হাসেম।