রাউজানে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ

এম কামাল উদ্দিন। রাউজান।।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের সার্বিক সহযোগিতায় গহিরা সাজেদা কবির চৌধুরী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই বিশেষজ্ঞ স্বাস্থ্যসেবা প্রদান ও ঔষধ বিতরণ করা হয়। চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন চট্টগ্রাম সি.এম.এইচ এর মেডিসিন বিশেষজ্ঞ মেজর এন.এম ফরহাদুজ্জামান। সমন্বয়ক ছিলেন ১৮ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স এর ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ।

চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি কাউন্সিলর কাজী মো. ইকবাল, সহ-সভাপতি ও স্কুলের সভাপতি ইরফান আহমেদ চৌধুরী, পৌর আ.লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন চৌধুরী পিবলু, রাউজান উপজেলা যুবলীগের সহ- সম্পাদক সাইদুর রহমান চৌধুরী, পৌর যুবলীগ নেতা ফরহাদ ইসলাম, শিপুল চৌধুরী প্রমূখ। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্পে আসা রোগীদের জীবানু নাশক স্প্রে করা হয়। পরে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে ঔষধ ও মাস্ক বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানের সমন্বয়কারী ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে বিশেষ স্বাস্থ্য সেবা ও ঔষধ বিতরণ করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস মহামারীর সময় অনেকে স্বাভাবিক চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন, আবার ঝুঁকির বিবেচনায় হাসপাতালে যেতে চান না! তাই বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এই উদ্যোগ।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এই বিশেষ স্বাস্থ্য সেবা আগামী ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত চলমান থাকবে। রাউজান উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইরফান আহমেদ চৌধুরী সেনাবাহিনীর মহৎ উদ্যােগকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন. যেই কোন দুর্যোগে সেনাবাহিনী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তারা রাউজানে ফ্রি চিকৎসা সেবা ও ঔষধপত্র বিতরণ করে মানবতার পরিচয় দিয়েছেন।

পৌর আ.লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন. রাউজানের গহিরা এলাকায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের উদ্যােগে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ অত্যান্ত মহতী কাজ । রাউজানের দরিদ্র, মধ্যবৃত্ত পরিবার চিকিৎসা সেবা নিয়ে উপকৃত হয়েছেন।