বদলগাছীতে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনা বিতরণে বঞ্চিত প্রকৃত কৃষক

নওগাঁ প্রতিনিধি।।

নওগাঁর বদলগাছীতে করোনা পরবর্তী কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষকদের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়েছে। আর এই প্রণোদনা বিতরণে বঞ্চিত হয়েছে প্রকৃত কৃষকরা ।

মঙ্গলবার(০১ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টায় কৃষি হলরুমে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এই কর্মসূচির আয়োজন করে।
চলতি অর্থ বছরে খরিপ-২ মৌসুমে মাসকালাই উৎপাদন বৃদ্ধির নিমিত্তে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়।
উপজেলার ৯০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের প্রতিজনকে পাঁচ কেজি মাসকালাই বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও পাঁচ কেজি এমওপি সার বিতরণ করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহা. আবু তাহির।
আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ হাসান আলী, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম, সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আতোয়ার রহমান প্রমূখ।

অপরদিকে, উপজেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক বকুল, মিলন, হাসান, ইউছুব, জিল্লু, আলামিন, রতন, বাবু ও মোস্তফাসহ প্রায় শতাধিক কৃষকরা অভিযোগ করে বলেন, বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার তাই কৃষকদের কথা বিবেচনা করে সরকার বিভিন্ন সময় দূর্যোগ মোকাবেলায় এলাকায় কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির সার্থে প্রণোদনা প্রদান করে থাকে। কিন্তু এই সব প্রণোদনা আমরা প্রকৃত কৃষকরা পাইনা বলইে চলে। আর এসব প্রণোদনা পেয়ে থাকেন দলীয়, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের কাছের লোকজনরা। আমরা সাধারন কৃষকরা এসব বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার ও উপসহকারী কৃষি অফিসারদের কাছে বারবার মৌখিক অভিযোগ দিলেও আমাদের কথার কোন কর্ণপাত করেননা তারা। আর এতে করে সরকারের স্বপন্ন পুরুণ হচ্ছেনা।

তারা আরো বলেন, উপজেলা কৃষি অফিস থেকে বিভিন্ন সময়ে যে সব প্রণোদনা প্রদান করা হয় বেশির ভাগই পায় একই কৃষক। আর তারা এই সব প্রণোদনা উত্তলোন করে বাজারে বিক্রয় করে দেন। যার ফলে ফসল উৎপাদনে প্রকৃত কৃষকদের আগ্রহ হারাচ্ছে।

কৃষকদের এসব অভিযোগ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার হাসান আলীর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এসব বিষয়ে আমার কিছু করার নেই। কারণ ইউনিয়ন কৃষি পূর্ণবাসন কমিটির সভাপতি ইউপি পরিষদের চেয়াম্যানরা আর তারা যেসব তালিকা প্রদান করেন সেই তালিকা উপজেলা পূর্ণবাসন কমিটি যাচাই বাছাই করে যে তালিকা আমাকে প্রদান করেন সেই তালিকা অনুযায়ী আমারা প্রণোদনা প্রদান করে থাকি।

সদর ইউনিয়নের কাদিবাড়ী গ্রামের প্রকাশ সাহাকে যে প্রণোদনা প্রদান করেছেন তিনি একজন সার ব্যবসায়ী তিনি কখনো এসব ফসল চাষাবাদ করেনা বলে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, এবার দেখা যাক।
এবিষয়ে উপজেলা কৃষি পূর্ণবাসন কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহা. আবু তাহির এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।