সাংবাদিকতাঃ এক অনিশ্চিত মহান পেশা

- Advertisement -

পৃথিবীতে নেই কোনও বিশুদ্ধ চাকরি।’ ত্রিশের দশকের প্রধানতম কবি জীবনানন্দ দাসের একটি কবিতার পঙক্তি এটি। মনের মতো চাকরি না পেয়ে হতাশ হয়ে জীবনানন্দ এ পঙক্তি লিখে থাকতে পারেন। তখনকার দিনের একজন ডাবল এমএ পাশ কলেজ শিক্ষকের এ পঙক্তি আজকের দিনে আমাদের কাছে বিস্ময়কর ঠেকতে পারে। কেননা ওই সময় এ ভূখণ্ডে এখনকার মতো এত মানুষ উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতেন না। আমাদের এই সময়ে পুঁজি বিকশিত হয়ে ব্যবসা বাণিজ্যের এতটাই প্রসার ঘটেছে যে, চাকরির সুযোগ তৈরি হয়েছে বিপুল। অন্যদিকে জনসংখ্যা বৃদ্ধি, উচ্চ-শিক্ষা ও পেশাদারী-শিক্ষার প্রসারে চাকরির পরিস্থিতি এতটাই করুন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, বিশুদ্ধ চাকরি তো দূরের কথা— একটা ‘কোনও রকম’ জীবিকা পেতেই মানুষের নাভিশ্বাস উঠে যায়। তার ওপর এক শ্রেণীর শিক্ষার্থী তার শিক্ষাজীবন শুরুই করে ভবিষ্যতে শুধু ‘একটা চাকরি’ পাবার আশা নিয়ে। এ লক্ষ্যে সে বোটানিতে স্নাতক করে ব্যাংকে চাকরি করতে রাজী, ব্যবস্থাপনায় স্নাতক হয়ে ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি হতেও প্রস্তুত।

চাকরির এ আকালে সাংবাদিকতাকে বলা যেতে পারে বিশুদ্ধ চাকরি। কারণ একে চাকরি বলা যাবে না এই অর্থে যে, সাংবাদিক আসলে কারো চাকর কিংবা আজ্ঞাবাহী দাস নয়। তাঁরা সমাজের আয়না। তিনি সংবাদ তুলে ধরেন নিরপেক্ষতার নিরিখে। যদিও তাকে নিরপেক্ষ বলা যাবে না, কারণ তিনি মূলত জনমানুষের পক্ষের। প্রতিবেদন প্রস্তুতে তিনি একজন দক্ষ তদন্তকারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। তিনি সাহিত্য জানেন, তার কাব্যরুচি অনন্য, তার জীবনবোধ অন্যদের তুলনায় ভিন্ন, তার দৃষ্টিভঙ্গি তীক্ষ্ম, তিনি সাহসী, সমাজের আর দশজন চাকুরীজীবির থেকে তিনি স্মার্ট, সচেতন, স্বাধীনচেতা। তিনি সমাজের অদৃশ্য গহ্বর থেকে খুঁজে বের করেন এমন সংবাদ যা কারও নজরে পড়ে না কখনও। তিনি একটি বাবুই পাখিকে নিয়ে তৈরি করতে পারেন এমন এক হৃদয়গ্রাহী প্রতিবেদন যা সবাইকে স্পর্শ করতে পারে। একটি কালভার্ড নিয়ে তিনি লিখে বসতে পারেন এমন এক ফিচার যা পাঠককে কাঁদিয়ে দিতে পারে, দীর্ঘশ্বাসে ভরিয়ে দিতে পারে কিংবা হাসি ফুটিয়ে তুলতে পারে বিষন্ন মানুষটির মুখে।

অন্য অর্থে, কখনও কখনও কোনও কোনও ক্ষেত্রে সাংবাদিকতা চাকরি থেকেও ভয়াবহ দাসত্বপূর্ণ। সাম্প্রতিক কালে সাংবাদিকতা নিয়ে জনপ্রিয় ও প্রচলিত একটি প্রবাদের মধ্যে বিষয়টি তীর্যকভাবে ফুটে ওঠেছে। সাংবাদিকদের, সংবাদমাধ্যমের সমালোচনা করে নিন্দুকরা বলেন, বিত্তবানরা আগে গুন্ডা পুষতেন, এখন পোষেন সাংবাদিক। অর্থাৎ, যিনি বৈধ বা অবৈধ উপায়ে অঢেল অর্থের মালিক বা শিল্পপতি হয়েছেন, তার একটি সংবাদমাধ্যম থাকা চাই। তাহলে তার অবৈধ কর্মকান্ড বা ব্যবসা নিয়ে অন্যরা কোনও প্রশ্ন তুলতে পারবে না। আর ওই সংবাদ মাধ্যমে চাকরি করতে যিনি যাচ্ছেন, প্রকৃত অর্থে ওই দূর্নীতিপরায়ন মালিকের স্বার্থে তার আজ্ঞাবহ দাস হিসেবে কাজ করার মানসিক প্রস্তুতি নিয়েই তাঁকে যেতে হচ্ছে। অন্যদিকে হলুদ সাংবাদিকতা তো ছিল, আছে এবং থাকবে। তা ওই পয়সাওয়ালা মালিকের পক্ষের হোক বা পেশাদার সংবাদমাধ্যমের ভেতরে আত্মগোপনে থাকা সুবিধাবাদী দলটিই হোক।

সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন সাংবাদিকতা নামে নতুন এক ধরণের সাংবাদিকতা শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের মতো দেশে এটি অল্প সময়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেলেও এ খাতের বিকাশে আরো বেশ খানিকটা সময়ের প্রয়োজন। কেননা দেশে ইন্টারনেটের প্রসার এখনও তেমনভাবে ঘটেনি, পাঠকের হাতে হাতে পৌঁছেনি অনলাইনে সংবাদপত্র পাঠের যন্ত্র। তবু একসময়ে পৌঁছাবে এই আশায় সখের সাংবাদিকরাও একটি ডোমেইন কিনে, সামান্য হোস্টিং দিয়ে শুরু করে দিয়েছেন তাদের স্বপ্নের পেশা।

কেন এ নতুন প্লাটফর্মে কাজ করতে চান তারা? মুদ্রিত সংবাদপত্র ও টেলিভিশনের কর্মী হওয়ার রয়েছে সুনির্দিষ্ট কিছু সীমাবদ্ধতা। আর অনলাইনে, বলা চলে বেশ সহজেই শুরু করে দেয়া যায়। কোটি টাকার ছাপাখানা, লাখ টাকার নিউজপ্রিন্ট আর হাজার টাকা সম্মানীতে এখানে সাংবাদিক রাখতে হয় না বললেই চলে। তবু এ কাজটিও যারা পেশাদারিত্বের সঙ্গে করেন, তারা কিন্তু হাজার হাজার টাকা সম্মানীর বিনিময়ে সাংবাদিকদের কাছ থেমে শ্রম, মেধা ও সময় কিনছেন।

অন্যদিকে লিটলম্যাগের ধারণা নিয়ে গড়ে উঠছে শত শত আন্ডারগ্রাউন্ড সংবাদ পোর্টাল। কেন এ কাজটিই করতে হচ্ছে ওই পোর্টালের সম্পাদকদের? তারাতো চালাতে পারতেন পর্ণো বা ডেটিং সাইট। নিতে পারতেন অনলাইনভিত্তিক অন্য কোনও উদ্যোগ। সংবাদের পোর্টালই করছেন তার কারণ এখানে আছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠার, মানুষের জন্য কাজ করার, নিজেকে শানিয়ে নেয়ার অবাধ সুযোগ।

এছাড়া নতুন, রূচিশীল, বৈধ ও ব্যতিক্রমী একটি আয়ের পথ এটি। সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের সাহায্যে, গুগল অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে— চেনা-জানাদের কাছ থেকে কিছু বিজ্ঞাপন নিয়ে সামান্য আয় করা যেতে পারে এ মাধ্যমে। পাশাপাশি তুলে ধরা যায় নিজের অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো, যেগুলো স্থান সংকুলান না হওয়ায় মুদ্রিত কাগজে আসে না।

অবশ্য এই অঙ্গনে আরও সক্রিয় ওই ওই হলুদ দলটি।
এত যে আয়োজন, এর নিশ্চয়ই একটি ইতিবাচক দিক রয়েছে। ব্যক্তির বা ক্ষুদ্র গোষ্ঠীর প্রচেষ্টায় গড়ে ওঠা এ পোর্টালগুলো একসময় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে বলে বিশ্বাস করি।
উন্নতবিশ্বে রয়েছে অসংখ্য কমিউনিটি রেডিও। এক একটি কমিউনিটি ওসব রেডিও থেকে পাচ্ছেন তাদের প্রয়োজনীয় খবর আর উপভোগ করছেন স্থানীয় প্রিয় শিল্পীর গান। এই পোর্টালগুলোও তেমনি একেকটি অঞ্চলের মানুষের সুখ-দুঃখের খবর পরিবেশন করবে বিশ্বজুড়ে। সৌদি আরবে কাজ করতে যাওয়া ভোলার ছেলেটা তার গ্রামের খবর জেনে নেবে সেই পোর্টাল থেকে। সেগুলোতে উঠে আসবে অঞ্চলগুলোর উদ্যোগ আর অর্জনের খবর। দূর্নীতি আর অনিয়মের ডাটাবেজ। সরকার ও আইনশৃক্সক্ষলা রক্ষাকারী বাহিনী এক ক্লিকে পেয়ে যাবে ভোলা জেলার খবর। কিংবা জানা যাবে কোন অঞ্চলে এবার ফলেছে বিপুল পরিমাণ ফসল। পোর্টালগুলোর কাছে সেই প্রত্যাশা আমরা করতেই পারি।

- Advertisement -

সর্বশেষ খবর

রাউজানের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে স্কুল শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

এম কামাল উদ্দিন। রাউজান।। চট্টগ্রামের রাউজানে ৯নং পাহাড়তলী ইউনিয়নের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মোহাম্মদ রুহান (১৫) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থী ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। (১...
- Advertisement -

শৈলকূপায় সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু

সম্রাট হোসেন,ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ বৃহস্পতিবার (১লা অক্টোবর) দুপুরে পৌর এলাকার শ্যামপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে। নিহত শিক্ষার্থী ওই গ্রামের হাসমত মন্ডলের ছেলে ও উপজেলার সারুটিয়া ইউনিয়নের শাহবাড়িয়া...

পলাশবাড়ীতে বন্যাদূর্গত এলাকা পরিদর্শনে এমপি

রবিউল ইসলাম । পলাশবাড়ী।। পলাশবাড়ীতে কিশোরগাড়ী ইউনিয়নে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করলেন পলাশবাড়ী-সাদুল্যাপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি ও গাইবান্ধা জেলা...

সীতাকুণ্ডে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২

বিশেষ প্রতিবেদক।। কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী চট্টগ্রাম হতে একটি পিকআপ যোগে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে ঢাকার দিকে আসছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ ১লা অক্টোবর...

রিলেটেড নিউজ

রাউজানের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে স্কুল শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

এম কামাল উদ্দিন। রাউজান।। চট্টগ্রামের রাউজানে ৯নং পাহাড়তলী ইউনিয়নের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মোহাম্মদ রুহান (১৫) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থী ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। (১...

শৈলকূপায় সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু

সম্রাট হোসেন,ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ বৃহস্পতিবার (১লা অক্টোবর) দুপুরে পৌর এলাকার শ্যামপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে। নিহত শিক্ষার্থী ওই গ্রামের হাসমত মন্ডলের ছেলে ও উপজেলার সারুটিয়া ইউনিয়নের শাহবাড়িয়া...

পলাশবাড়ীতে বন্যাদূর্গত এলাকা পরিদর্শনে এমপি

রবিউল ইসলাম । পলাশবাড়ী।। পলাশবাড়ীতে কিশোরগাড়ী ইউনিয়নে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করলেন পলাশবাড়ী-সাদুল্যাপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি ও গাইবান্ধা জেলা...

সীতাকুণ্ডে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২

বিশেষ প্রতিবেদক।। কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী চট্টগ্রাম হতে একটি পিকআপ যোগে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে ঢাকার দিকে আসছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ ১লা অক্টোবর...
- Advertisement -