পূজার পোশাক কিনে না দেয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

মো:রফিকুল ইসলাম,নড়াইল:

নড়াইলে মিতু দাস (১৫) নামে দশম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে,সে সদর উপজেলার বোড়াবাদুড়িয়া গ্রামের রতন দাসের মেয়ে।
শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও স্থনীয় সুত্রে জানায়,আসন্ন শারদীয়া দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) মিতুর জন্য তার বাবা একটি থ্রি-পিস কিনে আনেন,তবে থ্রি-পিসের জামার কাপড়ের একটি অংশে সামান্য কাটা থাকায় মিতু সেটি নিতে চায় না।
পরের দিন শুক্রবার বাজার থেকে সেটি পাল্টিয়ে অন্য মডেলের একটি থ্রি-পিস এনে দেওয়া হয়,কিন্তু অন্য মডেল হওয়ায় মিতু পুনরায় বায়না ধরে,এতে তার অসুস্থ পিতা রেগে গিয়ে তাকে বকাবকি করলে সে ঘরে আড়ার সাথে গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। টের পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে ‍মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত ডাক্তার মিতুকে মৃত ঘোষণা করেন।
নড়াইল সদর থানা পুলিশের এসআই মফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।